সীতাকুন্ডের কুমিরায় মহাশ্মশান শিব মন্দির নির্মান কাজের উদ্বোধন

ctg-sitakund-others2.jpg

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি :

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের কুমিরা ইউনিয়নের মগপুকুর সার্বজনীন মহাশ্মশান শিব মন্দির কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে।

১৯ মাচ সোমবার বিকেল পাঁচটার দিকে ভিত্তিপ্রস্তরটি স্থাপন করে সীতাকুণ্ড উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম আল মামুন। এসময় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, সীতাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাজমুল ইসলাম ভুইয়া, সীতাকুণ্ড সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শম্পা রানী সাহা, কুমিরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোরশেদ হোসেন চৌধুরী, সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবের সভাপতি এম সেকান্দর হোসাইন, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের চট্টগ্রাম উত্তরজেলার যুগ্ম সম্পাদক দ্বিবেশ কান্তি নাথ, সীতাকুণ্ড উপজেলা সভাপতি পঙ্গজ দেবনাথ, সাংবাদিক কৃষ্ণ চন্দ্র দাস, ইউপি সদস্য মো. সালাউদ্দিন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সীতাকুণ্ড উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম আল মামুন বলেন, মগপুকুর মহাশ্মশানে ভুমিহীন সনাতন সম্প্রদায়ের শেষ ঠিকানা। এ এলাকায় মানুষ শান্তিপ্রিয়। সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সব সময় যাতে বজায় থাকে সেজন্য সকলকে আহবান জানান। এসময় শিব মন্দিরটি নির্মানের সহযোগীতার আশ্বাস দেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ইউএনও নাজমুল ইসলাম ভুইয়া বলেন, মহাশ্মশানের বিভিন্ন জটিলতার কথা তিনি জানতেন না। মন্দির কমিটিকে সঙ্গে নিয়ে সব ধরনের জটিলতা নিরসনের সহযোগীতা করবেন বলে জানান।

সীতাকুণ্ড সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শম্পা রাণী সাহা বলেন, হিন্দু সম্প্রদায়ের নারীদের আরও সচেতন হতে হবে। সন্তানদের সুশিক্ষিত করতে হবে। কোন কারণে বাল্য বিয়ে দেওয়া যাবে না। এজন্য সবাইকে সচেতন হতে হবে।

কুমিরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোরশেদ হোসেন চৌধুরী বলেন, হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন বিভিন্ন সাম্প্রদায়িক সমস্যা একজোট হয়ে মোকাবেলা করতে হবে। প্রশাসন আপনাদের পাশে রয়েছে।

স্বাগত বক্তব্যে মহাশ্মশান কমিটির সহ-সভাপতি অরবিন্দু দত্ত বলেন, তারা শ্মশানের ভুমিতে ‍দ্বিতল বিশিষ্ট একটি শিব মন্দির করা হবে। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ২৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা। এছাড়া মহাশ্মশানের ভুমি সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন।

Top