পেকুয়ায় মুক্তিযোদ্ধারা সংবর্ধিত

Songbordana.jpg

স্টাফ রিপোর্টার, পেকুয়া :
পেকুয়ায় সংবর্ধনা অনুষ্টানে মুক্তিযোদ্ধারা বলেছেন, আমরা পরাধীনতার শৃংখল থেকে মুক্ত হয়েছি। তবে দরিদ্র ও ধনীদের বৈষম্যের উত্তরন ঘটেনি। নিরসন হয়নি উচ্চ ও নিন্মবিত্তের মধ্যে সমবন্টনের অধিকার। এক সাগর রক্তের অবগাহন করে একটি দেশ স্বাধীন হয়েছে। জাতির শ্রেষ্ট ও অকুতোভয় সন্তান দেশের জন্য প্রান দিয়েছে। অগ্নিঝরা এ মার্চ মাসে শত্রুরা নিরস্ত্র বাঙ্গালীর উপর ঝাপিয়ে পড়ে। আমরা প্রতিরোধ যুদ্ধে সম্মুখীন হয়েছি। অস্ত্র আমাদের ধমিয়ে রাখতে পারেনি। আজকে আমরা স্বাধীন জাতি। পৃথিবীর মানচিত্রে আমরা মাথা উচুঁ করে দাড়িয়েছি। তবে দরিদ্র ও পেশাজীবি মানুষের অধিকারের সমবন্টন এখনও বৈষম্যের মধ্যে থেকে গেছে। একশ্রেনীর মানুষ এখনও নিন্মশ্রেনীর মানুষকে শোষন ও বঞ্চিত করছে। স্বাধীনতার মুল ভিত্তি ছিল অর্থনৈতিক মুক্তি। সাংষ্কৃতিক ও রাজনৈতিক মুক্তিই ছিল স্বাধীনতার মুল মন্ত্র। আমরা প্রশ্ন রাখবার চাই ৪৭ তম বর্ষ অতিক্রম করছি। মানুষ মানুষের মাঝে হানাহানি ও বিবেদ থেকে গেছে। এ সবের উত্তরন না ঘটলে উন্নত ও সমৃদ্ধির পথে অন্তরায়। আমাদের জাতীয় চেতনাকে স্তব্দ করবে মানুষের দলাদলি ও হানাহানি। গণতন্ত্র ও মানুষের মৌলিক অধিকারসমুহ রাষ্ট্র নিশ্চিত করে। গত ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন উপলক্ষে পেকুয়ায় জাতির শ্রেষ্ট সন্তান মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধিত করা হয়। এ অনুষ্টানে এ সব বলেছেন মুক্তিযোদ্ধারা। ওই দিন দুপুরে উপজেলা প্রশাসন সংবর্ধনার আয়োজন করে। পেকুয়া শহীদ জিয়াউর রহমান উপকুলীয় কলেজ মাঠে এ সংবর্ধনা সমাবেশে মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে গুরুত্বপূর্ন বক্তব্য দেন টইটং ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা রমিজ উদ্দিন আহমদ। এ সময় পেকুয়ার সনদপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাবৃন্দ আলোচনায় অংশ নেয়। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহাবুব উল করিম। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পেকুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাফায়াত আজিজ রাজু। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন পেকুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ জহিরুল ইসলাম খান, কক্সবাজার জেলা আ’লীগের সাবেক মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট কামাল হোসেন, জেলা আ’লীগের সদস্য এস,এম গিয়াস উদ্দিন, উম্মে কুলসুম মিনু, পেকুয়া উপজেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক আবুল কাসেম। বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি হানিফ চৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্টিত উক্ত সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পেকুয়া উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লুৎফা হায়দার রনি, রাজাখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছৈয়দ নুর, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসার জসিম উদ্দিন, উপজেলা মাধ্যমিক অফিসার আফম হাসান, উপজেলা প্রকৌশলী জাহেদুল আলম চৌধুরী, শহীদ জিয়াউর রহমান উপকুলীয় কলেজের অধ্যক্ষ ওবায়দুর রহমান, পেকুয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সালামত উল্লাহ, পেকুয়া জিএমসির প্রধান শিক্ষক জহির উদ্দিন, পেকুয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল হাসেম, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সম্পাদক নাছির উদ্দিন প্রমুখ। এর পূর্বে অতিথিবৃন্দ মহান মুক্তিযোদ্ধাদের উপহারসামগ্রী প্রদান করেন ও তাদেরকে ফুল দিয়ে বরন করেন।

Top