পেকুয়ায় কুটির শিল্প মেলা শুরু

20180401_172758.jpg

জালাল উদ্দিন, পেকুয়া :
পেকুয়ায় কুটির শিল্প প্রদর্শনী বিক্রয় মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে। রবিবার ১ এপ্রিল দুপুরে উপজেলার সদর ইউনিয়নের মৌলভীপাড়া খেলার মাঠে মেলার শুভ উদ্বোধন করে। জেলা আ’লীগ সাধারন সম্পাদক মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান মেলার উদ্বোধক ও প্রধান অতিথি ছিলেন। আয়োজক কমিটির অন্যতম সমন্বয়ক মোহাম্মদ ইকবালের উপস্থাপনায় ও আ’লীগ পেকুয়া উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক আবুল কাসেমের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী সমাবেশে বক্তব্য দেন পেকুয়া উপজেলা আ’লীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহনেওয়াজ চৌধুরী বিটু, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল কক্সবাজার এর সাবেক কমান্ডার মোহাম্মদ শাহজাহান, উজানটিয়া ইউপির চেয়ারম্যান এম,শহিদুল ইসলাম চৌধুরী, টইটং ইউপির চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারন সম্পাদক জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী, ছাত্রলীগ কক্সবাজার জেলার সাধারন সম্পাদক(ভারপ্রাপ্ত) হোসাইন মোর্শেদ তানিম, কক্সবাজার পৌর আ’লীগ এর সাংগঠনিক সম্পাদক ও মেলার অন্যতম কর্ণধার মোহাম্মদ সাহেদ আলী সাহেদ প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম সম্পাদক ওয়াহিদুর রহমান ওয়ারেচী, তার সহধর্মিনী ছৈয়দা নিঘাত ওয়ারেচী, বারবাকিয়া ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি আবুল হোসাইন শামা, আ’লীগ নেতা জসিম উদ্দিন, রফিক তাহেরী, স্বেচ্ছাসেবকলীগ পেকুয়ার সভাপতি ওসমান গনি, আ’লীগ নেতা আবুল হাসেম টুনু, আ’লীগ নেতা আবু তৈয়ব, যুবলীগ নেতা সাংবাদিক নাজিম উদ্দিন, সাংবাদিক জালাল উদ্দিন, যুবলীগ নেতা মহিউদ্দিন, সৈনিকলীগ সভাপতি শহিদুল ইসলাম হিরু, সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ ফারুক, ছাত্রলীগ পেকুয়ার সভাপতি কফিল উদ্দিন বাহাদুর, সাধারন সম্পাদক এহেতাসামুল হক, সহসভাপতি মোহাম্মদ জকরিয়া, যুগ্ম সম্পাদক আমিনুর রশিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজাহান মিয়া, পারভেজ উদ্দিন নিশান, ছাত্রলীগ নেতা মনছুর আলম নানক, আরফাত প্রমুখ। সমাবেশ শেষে মেলার আনুষ্টানিক উদ্বোধন করা হয়। ফিতা কেটে মাসব্যাপী শিল্প ও বানিজ্য মেলার শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করা হয়। এ সময় শান্তির নীড় পায়রা উড়িয়ে মেলার শুভ সুচনা করে। এ দিকে পেকুয়ায় এ প্রথম হস্ত, বস্ত্র, কুটির শিল্প প্রদর্শনী বিক্রয় মেলার আয়োজন চলছে। মেলাকে ঘিরে বর্ণিল সাজে সজ্জিত করা হয়েছে মেলা প্রাঙ্গন। দৃষ্টি ও দর্শকদের মনোযোগ আকৃষ্ট করতে মৌলভীপাড়া খেলার মাঠে অপরুপ সৌন্দর্যে সজ্জিত হয়। সার্কাস, নাগরদোলা, ডিজিটাল ট্রেন, নৌকা ভ্রমন মেলার অন্যতম আকর্ষন। প্রতিদিন চলবে কার, রেসিং, শিশুদের দোলনায় সজ্জিত হয়েছে। এ দিকে মেলায় ওই দিন প্রচন্ড দর্শনার্থীদের সমাগম ঘটে। নারী ও পুরুষরা মেলায় ভীড় জমায়। তারা বিভিন্ন পন্যসামগ্রীর দোকানে কেনাকাটায় জড়ো হয়। দেশের বিভিন্ন কৌম্পনীর মোড়কজাত দ্রব্য ও পন্যসামগ্রী কিনছে নারী ও পুরুষ। ইলেকট্রনিক্স হস্তশিল্প কারুশিল্প ও ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের দেশীয় তৈরী পন্যের সম্ভার সমাহার ঘটেছে এ মেলায়। কেনাকাটা মেলাকে প্রানবন্ত ও প্রাণচাঞ্চল্য করবে। একদিকে বিনোদন অন্যদিকে অর্থনীতির প্রাণচাঞ্চল্য এ দুটির সংমিশ্রন ধারায় এ মেলার অন্যতম আকর্ষন।

Top