বঙ্গোপসাগরে লবণবাহী ৩টি কার্গো ট্রলারডুবি

trawler-sunk-20180401085358.jpg

সাগরকণ্ঠ ডটকম ডেস্ক :

কালবৈশাখীর দমকা হাওয়ার কবলে পড়ে বঙ্গোপসাগরে ৩টি লবণবাহী কার্গো ট্রলার ডুবে গেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এতে ডুবে যাওয়া ট্রলারের ১৫ মাঝি-মাল্লা সাগরে পড়ে গেলেও ভাগ্যক্রমে সবাই বেঁচে গেছেন।

পরে মাছ ধরারত অন্যান্য ফিশিং ট্রলার সাগরে ভাসমান ওই ১৫ মাঝিমাল্লাকে উদ্ধার করে কূলে নিয়ে আসে। তবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিমজ্জিত ৩টি কার্গো ট্রলার উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

শনিবার বেলা ১১টার দিকে বঙ্গোপসাগরের মহেশখালী দ্বীপ সংলগ্ন ভাঙ্গার খালের পশ্চিমে, কুতুবদিয়া দ্বীপের উত্তর ধুরং এর পশ্চিমে ও পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী সংলগ্ন পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে এসব ট্রলার ডুবে যায়। দুর্ঘটনা কবলিত কার্গো ট্রলার ৩টি শনিবার সকালেই মহেশখালী দ্বীপের লবণ ঘাট (স্থানীয় ভাষায় গোদী) থেকে লবণ বোঝাই করে চট্টগ্রামের উদ্দেশে সাগর পথে যাত্রা শুরু করেছিল।

মহেশখালীর ভাঙ্গার খাল লবণ ঘাট ব্যবসায়ী হোয়ানকের পানিরছড়া গ্রামের পেটান আলী কোম্পানী জানান, শনিবার সকালে মহেশখালীর ভাঙ্গার খাল, ঘটিভাঙ্গা ও ধলঘাটা মাতারবাড়ী থেকে তারা লবণ ব্যবসায়ীদের প্রায় ২০টিরও বেশি কার্গো ট্রলার লবণ বোঝাই করে চট্টগ্রামের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে।

হঠাৎ বেলা ১১টার দিকে হঠাৎ উত্তর দিক থেকে কালবৈশাখীর আচমকা দমকা হাওয়া শুরু হয়। এতে ভাঙ্গার খালের পশ্চিমে ১টি, কুতুবদিয়ার উত্তর ধুরংয়ের পশ্চিমে ১টি এবং রাজাখালী সংলগ্ন পশ্চিম সাগরে ১টি ট্রলার ডুবে যায়। এ ৩টি ট্রলারের ১৫ মাঝিমাল্লা সাগরে পড়ে গিয়ে ভাসতে থাকলে আশপাশে মাছ ধরারত ছোট ছোট নৌযান এগিয়ে এসে উদ্ধার করে কূলে নিয়ে আসে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ট্রলার ৩টি উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলে জানান ব্যবসায়ী পেটান আলী কোম্পানী।

Top