রাখাইনে বৌদ্ধ নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠী সাথে সেনাবাহিনীর সংঘর্ষ

myanmar-army-_1.jpg

 সাগরকণ্ঠ ডটকম ডেস্ক:

সহিংসতা কবলিত রাখাইন রাজ্যে বিদ্রোহীদের সঙ্গে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। দেশটির রাষ্ট্র মালিকানাধীন গণমাধ্যমের বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এমন তথ্য দিয়েছে।

মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও একটি সশস্ত্র বৌদ্ধ নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ অব্যাহত রয়েছে।

গত বছরের ডিসেম্বরের শুরুর দিকে আরাকান আর্মির সঙ্গে সংঘাত ছড়িয়ে পড়লে এখন পর্যন্ত আড়াই হাজার মানুষ ঘরবাড়ি থেকে বিতাড়িত হয়েছেন বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।

মিয়ানমারের ক্ষুব্ধ নৃগোষ্ঠীগুলো আরও স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে দেশটির সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই করে আসছে।

সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলোর সঙ্গে স্থগিত শান্তি আলোচনা শুরু করতে মিয়ানমারের উত্তর ও দক্ষিণপূর্বাঞ্চলে চার মাসের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে দেশটির সেনাবাহিনী।

কিন্তু রাখাইনের পশ্চিমাঞ্চলকে এ যুদ্ধবিরতি থেকে বাদ দিলে সহিংসতার অবসানে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর স্বদিচ্ছা নিয়ে প্রশ্ন তৈরি হয়েছে।

২০১৭ সালের মার্চে রাখাইনে সংখ্যালঘু মুসলিম রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীর জাতিগত নিধন অভিযানে সাত লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন।

আর এখন সহিংসতা চলছে রাখাইন আর্মির বিরুদ্ধে। মিয়ানমারের সরকারি গণমাধ্যম জানিয়েছে, মঙ্গলবার সিত্তের নিকটবর্তী অঞ্চলে ছোট ও ভারী অস্ত্রসমৃদ্ধ ৩০ জনের একটি দল বর্ডার গার্ড পুলিশের ওপর হামলা চালালে এক পুলিশ সদস্য মারাত্মকভাবে আহত হন।

আরাকান আর্মির মুখপাত্র খিন থু খা এ হামলার কথা অস্বীকার করেন। তবে সরকারি নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষের কথা জানিয়েছেন তিনি।

Top