সু-শাসন নিশ্চিত কর, বেকারত্ব নিরসন কর: শরিফুল কবির স্বপন

111.jpg
সংবাদ বিজ্ঞপ্তি :
জাসদের সহযোগী সংগঠন জাতীয় যুবজোট কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শরিফুল কবির স্বপন বলেছেন, দুর্নীতি ও লুটপাট বন্ধ করলে, দেশের সব বেকারদের চাকুরী দেওয়া সম্ভব। তাই উন্নয়নের সুফল সাধারণ মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়ে সব ক্ষেত্রে সুশাসন নিশ্চিত করতে হবে।
শুক্রবার (৮নভেম্বর) বিকাল ৩টায় বঙ্গবন্ধু সড়কে জাতীয় যুবজোট কক্সবাজার জেলা শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মলেনের উদ্বোধক হিসাবে তিনি এ কথা বলেন।
কেন্দ্রীয় যুবজোট সাধারণ সম্পাদক শরিফুল কবির স্বপন আরও বলেন, “সকলেই একবাক্যে স্বীকার করেছেন যে, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে বিস্ময়কর উন্নতি হয়েছে। কিন্তু দুর্নীতি ও লুটপাট বৃদ্ধি পেয়েছে। এই দুর্নীতি ও লুটপাট বন্ধ করা গেলে দেশ যে প্রবৃদ্ধি অর্জন হবে তা দিয়ে দেশের সকল বেকার যুবদের ভাতাও দেওয়া সম্ভব, কর্মসংস্থানও করাও সম্ভব।”
সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা জাসদ সভাপতি নইমুল হক চৌধুরী টুটুল বলেন- দেশ এখন ‘নতুন রাজনৈতিক পর্বে’ উন্নীত হয়েছে। এই নতুন রাজনৈতিক পর্বে, আমাদের কর্তব্য হল বিগত বছরে যে সাফল্য অর্জন করেছি তা ধরে রাখতে হবে। সাফল্যকে টেকসই করে সুফলগুলো বাংলাদেশের মানুষের ঘরে পৌঁছানো হচ্ছে প্রধান রাজনৈতিক কাজ।
জাসদ সভাপতি আরও বলেন, সমাজে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করতে হলে দুর্নীতিবাজ-লুটেরাদের বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান চলমান রাখতে হবে। দল না দেখে, মুখ না দেখে আইন প্রয়োগ করুন কঠোরভাবে। তারা যে ছাতার নিচে থাকুক না কেন।
উন্নয়নের পথে দুর্নীতিবাজ-লুটেরারাই আমাদের বাঁধা। এই বাঁধা অতিক্রম করতে না পারলে আমরা আবার পরাজিত হয়ে যাব। তাই সারা দেশব্যাপী হাসানুল হক ইনুর নেতৃত্বে জাসদের সু-শাসনের দাবীতে যে আন্দোলন শুরু হয়েছে, তা এগিয়ে নিতে যুবকদের দায়িত্ব নিতে হবে। তবেই এই দেশে সু-শাসন আর সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হবে।
সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জেলা জাসদ সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আবুল কালাম আজাদ বলেন- দুর্নীতিবাজরা যে ছাতার নিচেই থাকুকনা কেন দুর্নীতিবাজ-লুটেরাদের ঠিকানা হবে জেলখানায়। দুর্নীতিবাজ-লুটেরা, অসৎ অফিসার, অসৎ রাজনীতিকদের বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত রাখতে হবে। দুর্নীতিবাজ-লুটেরা, অসৎ অফিসার, অসৎ রাজনীতিকদের অপরাধী সিন্ডিকেট ধ্বংস করে দিতে হবে। চলমান শুদ্ধি অভিযান ও দুর্নীতি বিরোধী অভিযান জেলা-উপজেলা পর্যায়ে নিয়ে যেতে হবে।
সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শহর জাসদ সভাপতি মোঃ হোসাইন মাসু বলেন, নৈতিকতা ও মূল্যবোধের ঘাটতি এবং হাতাশা-মাদক-ভোগ-সম্ভোগের সংস্কৃতির করাল গ্রাস থেকে যুব সমাজকে বাঁচাতে পাড়া-মহল্লায় সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সংগঠন গড়ে তুলতে হবে।
কক্সবাজার জেলা যুবজোট সহ-সভাপতি আবদুর রহিম এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অজিত কুমার দাশ হিমু’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- কেন্দ্রীয় জাসদের তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক কাজী সালমা সুলতানা, কেন্দ্রীয় যুবজোট কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শামশুল ইসলাম সুমন, জেলা সহ-সম্পাদক রফিক উদ্দিন চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক মিজানুর রহমান বাহাদুর, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক পরিতোষ বড়–য়া পবন, শহর জাসদ সাধারণ সম্পাদক নুর আহমদ, জেলা যুবজোট সহ-সভাপতি নুরুল আলম সিকদার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রতন দাশ, মোঃ জাকের হোসেন, মোঃ হাসান, রামু উপজেলা যুবজোট সভাপতি শহিদুল ইসলাম খোকন, উখিয়া উপজেলা যুবজোট সভাপতি একরামুল হক কন্টাক্টার, টেকনাফ উপজেলা যুবজোট সভাপতি জাফর আলম এমএ, সদর উপজেলা যুবজোট সভাপতি নাছির উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আমান উল্লাহ আমান, মহেশখালী উপজেলা যুবজোট সভাপতি মিসবাহ উদ্দিন ইরান, সাধারণ সম্পাদক তারেক আজিজ বিপ্লব, যুবজোট নেতা আবদুল মালেক, বোরহান উদ্দিন, শ্রমিকজোট সভাপতি আবদু জব্বার, সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ দাশ, সদর উপজেলা লোড আনলোড মৎস্য শ্রমিক ইউনিয়ন সভাপতি আসাদুল হক আসাদ, সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সবুজ, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সভাপতি আবদু রহমান, শহর ছাত্রলীগ সভাপতি কাইছার হামিদ প্রমুখ।
Top